শুক্রবার, আগস্ট ৭, ২০২০ || ২৩ শ্রাবণ, ১৪২৭ || ১৭ই জিলহজ, ১৪৪১ হিজরি

এ বছরের হজ নিবন্ধন ২০২১ সালেও কার্যকর থাকবে


কোভিড-১৯ মহামারী পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে হজ পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। সৌদিতে অবস্থানকারী ছাড়া কোনো দেশের নাগরিক এবার হজ করতে পারবেন না। এ কারণে বাংলাদেশ থেকে নিবন্ধনকারী ৬৫ হাজার মুসল্লিও এবার হজ করতে পারছেন না।

এমতাবস্থায় চলতি বছরের হজ নিবন্ধনকারীদের ২০২১ সালের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন হিসেবে কার্যকর থাকবে বলে জানিয়েছে সরকার।আর যারা চাইবেন তারা ব্যাংক থেকে নিবন্ধনের টাকা তুলে নিতে পারবেন।

সরকারি অথবা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যে সব হজ গমনেচ্ছু তাদের জমা করা নিবন্ধনের টাকা তুলতে চান তাদের আগামী ১২ জুলাইয়ের পর থেকে আবেদন করতে হবে বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

বুধবার সচিবালয়ে ধর্ম সচিব মো. নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে চলতি বছরের হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়,চলতি বছরের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন যথারীতি ২০২১ সালের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন হিসেবে কার্যকর থাকবে।

আগামী বছর কোনো কারণে হজ প্যাকেজের ব্যয় বাড়লে বা কমলে তা বর্তমানে হজযাত্রীর জমা অর্থের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে।

এছাড়া কোনো হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করলে একই সঙ্গে তার প্রাক-নিবন্ধনও বাতিল হয়ে যাবে এবং তিনি নতুন করে প্রাক-নিবন্ধন করে হজে যেতে পারবেন।

সরকারি ব্যবস্থাপনা হজ নিবন্ধনকারীরা টাকা উত্তোলন করতে চাইলে তিনি অনলাইনে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আবেদন করবেন এবং কোনো প্রকার সার্ভিস চার্জ কর্তন ছাড়াই তাকে তার জমা করা সমুদয় অর্থ ফেরত দেয়া হবে। এক্ষেত্রে তার প্রাক-নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে এবং ভবিষ্যতে হজে যেতে চাইলে নতুন করে প্রাক-নিবন্ধন করতে হবে।

বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করে টাকা উত্তোলন করতে চাইলে তার হজ এজেন্সির মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করবেন এবং মন্ত্রণালয় তা অনুমোদন করা সাপেক্ষে হজ এজেন্সির মাধ্যমে অথবা ব্যাংকের মাধ্যমে তাদের জমা অর্থ নেবেন।

সভায় আরও সিদ্ধান্ত হয়,সরকারি অথবা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যে সব হজযাত্রী তাদের জমা নিবন্ধনের টাকা তুলতে চান তাদের আগামী ১২ জুলাইয়ের পর আবেদন করতে হবে।

এর আগে প্রয়াত ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহর স্মরণে শোকসভায় তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। সভায় ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়সহ জেলা ও বিভাগীয় কার্যালয়ের কর্মকর্তা, হিন্দু বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্ত‍া ও হজ অফিসের কর্ম‍কর্তাসহ দেশ ও দেশের বাইরে থেকে বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরাম, বিশিষ্ট ব্যক্তিরা জুম অ্যাপের মাধ্যমে অংশ নেন।

মন্ত্রণালয় জানায়, এবার বাংলাদেশ থেকে ৬৫ হাজার ৫৯৪ জন হজে যেতে আগ্রহী ছিলেন।

 

Sharing is caring!

শেয়ার করুনঃ
shares